আমাদের তথ্য

দত্ত উচ্চ বিদ্যালয়, নেত্রকোনা

প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস:
গঙ্গাচরণের পাঠশালাকে কেন্দ্র করে তৎকালীন স্বদেশী আন্দোলনের নেতৃবৃন্দের উদ্যোগ ও গৌরীপুরের জমিদারগণের পৃষ্ঠপোষকতা ও ময়মনসিংহ জেলার ডেপুটি মেজিস্ট্রেট প্রখ্যাত লেখক ও ঐতিহাসিক শ্রী রমেশ চন্দ্র দত্ত আই.সি.এস মহোদয়ের উৎসাহে এই বিদ্যালয়ের গোড়া পত্তন হয়। স্থানীয় বিদ্যানুরাগীদের সমর্থনও ছিল ব্যাপক। ১৮৮৯ সনের ৬ ফেব্রুয়ারী বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী মঞ্জুরী পায়।

প্রতিষ্ঠাকাল: ৬ ফেব্রুয়ারী, ১৮৮৯ খ্রিঃ

এমপিও ভূক্ত শিক্ষক/শিক্ষিকা, ৩য় শ্রেণী ও ৪র্থ শ্রেণী কর্মচারীর সংখ্যাঃ
শিক্ষকঃ    ৮
শিক্ষকাঃ    ৯
সহ-গ্রন্থাগারিকঃ    ১
৩য় শ্রেণীঃ    ১
৪র্থ শ্রেণীঃ    ৩

 

কর্মরত শিক্ষক/শিক্ষিকা, ৩য় শ্রেণী ও ৪র্থ শ্রেণী কর্মচারীর সংখ্যাঃ
শিক্ষকঃ    ২৪
শিক্ষকাঃ    ১৯
সহ-গ্রন্থাগারিকঃ    ১
৩য় শ্রেণীঃ    ৩
৪র্থ শ্রেণীঃ    ৭

 

খন্ড অখন্ড জমির পরিমাপঃ
খেলার মাঠঃ   ২.০০ একর
চাষের জমিঃ    ১.৩৩ একর
বিদ্যালয়ঃ    ১.৯২ একর

 

প্রতিষ্ঠানের বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্যঃ
১। জনাব হাবিবুর রহমান খান রতন-সভাপতি।
২। মুক্ত রানী চৌধুরী- শিক্ষক প্রতিনিধি।
৩। মোঃ রেজাউল করিম- শিক্ষক প্রতিনিধি
৪। সেফালী আক্তার- সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি।
৫। জনাব মোঃ শামছুল- অভিভাবক সদস্য।
৬। মোঃ শহিদুল হক- অভিভাবক সদস্য।
৭। জনাব ফুল মিয়া- অভিভাবক সদস্য।
৮। জনাব তরুন কান্তি দাস- অভিভাবক সদস্য।

 

প্রতিষ্ঠানের মেধাবী ছাত্রছাত্রীবৃন্দের বিবরণঃ
(১)    নলানী রঞ্জন সরকার- অবিভক্ত বাংলার অর্থমন্ত্রী
(২)    সিদ্দিকুর রহমান- কেবিনেট সচিব
(৩)    শৈলজা রঞ্জন মজুমদার-অধ্যক্ষ, সংগীত বিভাগ, শান্তিনিকেতন
(৪)    হেলাল হাফিজ- কবি
(৫)    উজ্জল বিকাশ দত্ত- সচিব
(৬)    কামাল উদ্দিন সিদ্দিকি- প্রধান মন্ত্রীর মূখ্য সচীব
(৭)    হাসান মাহমুদ খন্দকার- আই. জি.পি, বাংলাদেশ পুলিশ
(৮)    মতিয়র রহমান খান- সাবেক মেয়র, নেত্রকোণা পৌরসভা
(৯)    মোঃ নজরুল ইসলাম খান- সাবেক মেয়র, নেত্রকোণা পৌরসভা
(১০)    প্রশান্ত কুমার রায়- বর্তমান মেয়র, নেত্রকোণা পৌরসভা,
প্রমুখ।